1. pragrasree.sraman@gmail.com : ভিকখু প্রজ্ঞাশ্রী : ভিকখু প্রজ্ঞাশ্রী
  2. avijitcse12@gmail.com : নিজস্ব প্রতিবেদক :
শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৩৬ পূর্বাহ্ন

শাসন তিলক প্রয়াত বিমলজ্যোতি মহাস্থবিরের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠান সম্পন্ন

অনুপম বড়ুয়া টিপু
  • সময় শুক্রবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ১১১ পঠিত
রাঙ্গুনিয়া বৌদ্ধ সমিতির সভাপতি ও উপজেলা কেন্দ্রীয় সৈয়দবাড়ী ধর্মচক্র বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ, শাসন তিলক প্রয়াত বিমলজ্যোতি মহাস্থবিরের                ২ দিনব্যাপী জাতীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে।

শেষ দিন শুক্রবার (১৮ ডিসেম্বর )  সকাল থেকে ধর্মীয় নানা আনুষ্ঠানিকতা শোকযাত্রা,শ্রদ্ধাঞ্জলির মাধ্যমে ধর্মীয় এ গুরুর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়।

সকালে অষ্টউপকরণ সহ সংঘদানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার উপ-সংঘরাজ স্মৃতিধর ভদন্ত শীলানন্দ মহাস্থবির। প্রধান অতিথি  ছিলেন বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার উপ-সংঘরাজ অধ্যাপক ধর্মরক্ষিত মহাস্থবির।

বিকেলে বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার সংঘরাজ , শাসন শোভন , ড. জ্ঞানশ্রী মহাথেরর সভাপতিত্বে স্মৃতিচারণ সভায়  ভার্চুয়ালি প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

প্রধান জ্ঞাতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার উপ-সংঘরাজ ভদন্ত ধর্মপ্রিয় মহাস্থবির।
বিশেষ অতিথি ছিলেন , ভদন্ত শাসন প্রিয় মহাস্থবির, ভদন্ত প্রিয়দর্শী মহাস্থবির, ভদন্ত রত্নপ্রিয় মহাস্থবির, ভদন্ত শীলরক্ষিত মহাস্থবির, ভদন্ত শাসনমিত্র মহাস্থবির, ভদন্ত ধর্ম দর্শী মহাস্থবির, ভদন্ত বিনয়পাল মহাস্থবির।প্রধান জ্ঞাতি ছিলেন বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ভদন্ত বুদ্ধ রক্ষিত মহাস্থবির।  প্রধান আলোচক ছিলেন বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার মহাসচীব এস লোকজিত থের ।
উদ্ভোধক ছিলেন রাঙ্গুনিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান স্বজন কুমার তালুকদার । অন্যান্যদের মধ্যে  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক বিমান চন্দ্র বড়ুয়া, রাঙ্গুনিয়া পৌরসভার মেয়র মো. শাহজাহান সিকদার, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ সদস্য কামরুল ইসলাম চৌধুরী, সুখবিলাস ফিসারিজ এন্ড প্লানটেশনের চেয়ারম্যান এরশাদ মাহমুদ,  মনিলাল তালুকদার, প্রসেনজিৎ তালুকদার প্রমূখ বক্তব্য রাখেন ।

ভার্চুয়ালি প্রধান অতিথির বক্তব্যে  তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন , প্রকৃতপক্ষে সকল ধর্মের মর্মবাণী হচ্ছে মানব সেবার মাধ্যমে সৌহার্দ্যে ও সম্প্রীতি স্থাপন করা, মানুষের মঙ্গল করা। ধর্মের এই মর্মবাণী সকলে ধারন করতে পারলেই পৃথিবীতে কোন হানাহানি, মারামারি এবং অশান্তি আর থাকবে না।
তিনি বলেন, আমাদের এই বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ক্ষেত্রে বিশ্বে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। এই দেশে হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ খ্রিষ্টান, বাঙালি, মগ, চাকমা সকল ধর্মের, সকল জাতির মানুষের যে সহাবস্থান এবং সাম্প্রদায়িক সম্পর্ক তা পৃথিবীতে বিরল।

তিনি আরো বলেন, সাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র পাকিস্তান থেকে বেরিয়ে এসে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে একটি অসম্প্রদায়িক রাষ্ট্র গঠিত হয়েছিল। আমাদের এই দেশে মাঝে মধ্যে সাম্প্রদায়িক বিষ বাষ্প মাথাছাড়া দিয়ে প্রভাব ফেলার চেষ্টা চালায়। কিন্তু আমাদের এই অসম্প্রদায়িকতা এই অপশক্তিকে সব সময় দমন করেছে। এখনও একটি সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠি আমাদের এই দেশকে, আমাদের সমাজকে হেয় করার চেষ্টা করে।
তিনি বলেন, আমাদের এই সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি এবং সম্মিলিত শক্তির কাছে তারা অতীতে যেমন পরাভূত হয়েছে তেমনি বর্তমান এবং ভবিষ্যতেও পরাভূত হবে। আমাদের প্রথম পরিচয় আমরা বাঙালি। সকল ধর্মের মানুষের মিলিত রক্তস্রোতের বিনিময়ে এই বাংলাদেশ সৃষ্টি হয়েছে। সাম্প্রদায়িক অপশক্তির স্থান বাংলাদেশে হতে পারে না।
তথ্যমন্ত্রী বলেন, “বিমল জ্যোতি মহাস্থবির বৌদ্ধ ধর্মের একজন ভিক্ষু ছিলেন। কিন্তু তিনি হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান সব ধর্মের মানুষের প্রিয় একজন মানুষ ছিলেন। তিনি তার দয়া, মমতা ও ভালবাসা দিয়ে সমস্ত মানুষের ভালবাসা এবং শ্রদ্ধার পাত্র হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হয়েছেন। তার বর্ণাঢ্য জীবন থেকে সব ধর্মের মানুষের অনেক কিছু শেখার আছে। তিনি তার আকর্ষণীয় ব্যক্তিত্ব দিয়ে সব ধর্মের মানুষকে সহজে আপন করে নিতে পারতেন।

শেয়ার দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো
© All rights reserved © 2019 bibartanonline.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazarbibart251
error: Content is protected !!