1. pragrasree.sraman@gmail.com : ভিকখু প্রজ্ঞাশ্রী : ভিকখু প্রজ্ঞাশ্রী
  2. avijitcse12@gmail.com : নিজস্ব প্রতিবেদক :
রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৬:১৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম
কর্মজ্যোতি জিনানন্দ মহাথের’র অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া আগামী ৪ ও ৫মার্চ দ্বাদশ সংঘরাজ ড.ধর্মসেন মহাথেরোর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন মহামান্য সংঘরাজ ও এক মহাজীবন দ্বাদশ সংঘরাজ ড.ধর্মসেন মহাথেরোর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া শুরু সংঘরাজ ড. ধর্মসেন মহাথেরো : জ্ঞান বাতিঘর, এক মহাজীবন কাব্যের প্রস্থান সংঘরাজ ড. ধর্মসেন মহাথেরোর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর বাণী পটিয়ায় দ্বাদশ সংঘরাজ ড.ধর্মসেন মহাথেরোর অন্তোষ্টিক্রিয়া আগামীকাল শুরু চট্টগ্রাম মহানগর বাংলাদেশ বুডিস্ট গ্রুপ সংগঠনের শিক্ষাসামগ্রী বিতরণ বুধবার ক্লোজআপ ওয়ানখ্যাত সংগীতশিল্পী নিশিতা বড়ুয়ার বিয়ে পরলোকে বর্ষীয়ান গীটার শিল্পী মানবেন্দ্র বড়ুয়া

রাউজানে ধূমারপাড়া আনন্দ বিহারে বিজয় দিবস উদযাপন

উজ্জ্বল কান্তি বড়ুয়া
  • সময় বৃহস্পতিবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৫৬ পঠিত
ধুমারপাড়া আনন্দ বিহার পরিচালনা কমিটির উদ্যোগে মহান বিজয় দিবসে উপলক্ষে জাতির শান্তি-সমৃদ্ধি, অগ্রগতি কামনা এবং মুক্তিযুদ্ধে শহীদ  আত্মদানকারী যুদ্ধাহত মুক্তিযােদ্ধাদের উদ্দেশ্যে পূণ্যদান ও বিশেষ প্রার্থনাসহ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
বাংলাদেশ বৌদ্ধ ভিক্ষু মহাসভার যুগ্ম-মহাসচিব প্রজ্ঞাবারিধি অধ্যাপক সুমেধানন্দ মহাথেরোর সভাপতিত্ব পূণ্যদান করেন আধারমানিক বুদ্ধরশ্মি বৌদ্ধ বিহারের উপাধ্যক্ষ ভদন্ত শুভানন্দ ভিক্ষু।
বক্তব্য রাখেন ধূমারপাড়া আনন্দ বিহার পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক উজ্জ্বল কান্তি বড়ুয়া, যুগ্ম- সাধারণ সম্পাদক প্রবারণ বড়ুয়া। পঞ্চশীল প্রার্থনা করেন বিজয় বড়ুয়া, ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন অর্থ সম্পাদক রূদয়ন বড়ুয়া। উপস্থিত ছিলেন প্রকৃতি রঞ্জন বড়ুয়া, গৌতম বড়ুয়া, সজল বড়ুয়া, দানবীর বড়ুয়া, কনক বড়ুয়া, বিটু বড়ুয়া, চন্দন বড়ুয়া, প্রকাশ বড়ুয়াসহ গ্রামবাসীবৃন্দ। সমগ্র অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন রয়েল বড়ুয়া।
অধ্যাপক সুমেধানন্দ মহাথের মুক্তিযুদ্ধের বিজয়গাঁথা ইতিহাস বলতে গিয়ে বলেন জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমনের নেতৃত্বে এদেশের মানুষ যুদ্ধে অংশগ্রহণ করে স্বাধীন বাংলাদেশে পেয়েছি। দেশমাতৃকার টানে যাঁরা যুদ্ধে গিয়ে শহীদ হয়েছে, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের উদ্দেশ্যে পূণ্যদান করেন। সেইসাথে যুদ্ধকালীন সময়ে মহাসংঘনায়ক বিশুদ্ধানন্দ মহাথেরর গৌরবগাঁথা ভূমিকা তুলে ধরেন। তিনি বলেন যুদ্ধকলীন সময়ে বৌদ্ধ গ্রাম, মন্দির গুলো ছিল মুক্তিযোদ্ধাদের নিরাপদ আশ্রয়স্থল।

শেয়ার দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো
© All rights reserved © 2019 bibartanonline.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazarbibart251
error: Content is protected !!