1. pragrasree.sraman@gmail.com : ভিকখু প্রজ্ঞাশ্রী : ভিকখু প্রজ্ঞাশ্রী
  2. avijitcse12@gmail.com : নিজস্ব প্রতিবেদক :
সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ০২:৫৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
সংঘনানগরীর কাতালগঞ্জ নবপন্ডিত বিহারে সংঘনায়ক ও উপ-সংঘনায়ক বরণ কর্মজ্যোতি জিনানন্দ মহাথের’র অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া আগামী ৪ ও ৫মার্চ দ্বাদশ সংঘরাজ ড.ধর্মসেন মহাথেরোর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন মহামান্য সংঘরাজ ও এক মহাজীবন দ্বাদশ সংঘরাজ ড.ধর্মসেন মহাথেরোর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া শুরু সংঘরাজ ড. ধর্মসেন মহাথেরো : জ্ঞান বাতিঘর, এক মহাজীবন কাব্যের প্রস্থান সংঘরাজ ড. ধর্মসেন মহাথেরোর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর বাণী পটিয়ায় দ্বাদশ সংঘরাজ ড.ধর্মসেন মহাথেরোর অন্তোষ্টিক্রিয়া আগামীকাল শুরু চট্টগ্রাম মহানগর বাংলাদেশ বুডিস্ট গ্রুপ সংগঠনের শিক্ষাসামগ্রী বিতরণ বুধবার ক্লোজআপ ওয়ানখ্যাত সংগীতশিল্পী নিশিতা বড়ুয়ার বিয়ে

মানবমুক্তির পথ বৌদ্ধ দর্শন

প্রতিবেদক
  • সময় বুধবার, ৯ মে, ২০১৮
  • ৫৫৮ পঠিত

দেবাশিস ভট্টাচার্য:

বৈশাখী পূর্ণিমা হল বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের পবিত্রতম উৎসব। এই পুণ্যোৎসব বৈশাখ মাসের পূর্ণিমা তিথিতে উদযাপিত হয়। এই পবিত্র তিথিতে ভগবান বুদ্ধ জন্মগ্রহণ করেছিলেন, বোধি বা সিদ্ধিলাভ করেছিলেন এবং মহাপরিনির্বাণ লাভ করেছিলেন।

গৌতম মানুষের কষ্টে ক্রন্দন করতেন, জাগতিক দুঃখ মুক্তির উপায় খুঁজে চলছিলেন তিনি। জন্ম মৃত্যু জ্বরা-এ তিনটি সত্য তো আছেই এ থেকে মুক্তির উপায় কি-জ্বরা ব্যাধি মৃত্যূ রোধ কি করে হয়? এটারই সাধনা করেছিলেন তিনি, একটা ধরলে একটা আসে। লোভ থেকেই শুরু তারপর হিংসা বিদ্বেষ যা কিনা খুন পর্যন্ত গড়ায়। তিনি ধর্মচক্র প্রবর্তনের ভেতর দিয়ে পরিষ্কার দেখিয়ে দিয়ে গেছেন মানুষকে মুক্তির পথ।

অহিংসা পরম ধর্ম-অতিরিক্ত চাহিদা লোভ দুঃখের একমাত্র কারণ। এ দিনটিতে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীগণ স্নান করেন, শুচিবস্ত্র পরিধান করে মন্দিরে বুদ্ধের বন্দনায় রত থাকেন। ভক্তগণ প্রতিটি মন্দিরে বহু প্রদীপ প্রজ্জ্বলিত করেন, ফুলের মালা দিয়ে মন্দিরগৃহ সুশেভিত করে বুদ্ধের আরাধনায় নিমগ্ন হন।

এছাড়া বুদ্ধগণ এই দিনে বুদ্ধ পূজার পাশাপাশি পঞ্চশীল, অষ্টশীল, সূত্রপাঠ, সূত্রশ্রবণ, সমবেদ প্রার্থনা করে থাকেন, দক্ষিণ এশিয়ার দেশ বাংলাদেশে এই দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় প্রতি বছরই পালিত হয় গৌতম মানুষের কষ্টে ক্রন্দন করতেন। জন্ম মৃত্যু জ্বরা। এ তিনটি সত্য তো আছেই এ থেকে মুক্তির উপায় কি জ্বরা ব্যাধি মৃত্যু রোধ কি করে হয়-এটারই সাধনা করেছিলেন তিনি। একটা ধরলে একটা আসে লোভ থেকেই শুরু তারপর হিংসা বিদ্বেষ যা কিনা খুন পর্যন্ত গড়ায় তিনি ধর্মচক্র প্রবর্তনের ভেতর দিয়ে পরিস্কার দেখিয়ে দিয়েেছেন মানুষকে মুক্তির পথ অহিংসা পরম ধর্ম। এই বুদ্ধ পূর্ণিমায় গৌতম বুদ্ধের অহিংসা আর সম্প্রীতির বাণীতে শান্তি নেমে আসুক পৃথিবীতে। সবাইকে বুদ্ধ পূর্ণিমার শুভেচ্ছা।

লেখক: কথা সাহিত্যিক

শেয়ার দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো
© All rights reserved © 2019 bibartanonline.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazarbibart251
error: Content is protected !!