1. pragrasree.sraman@gmail.com : ভিকখু প্রজ্ঞাশ্রী : ভিকখু প্রজ্ঞাশ্রী
  2. avijitcse12@gmail.com : নিজস্ব প্রতিবেদক :
মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৬:৩২ পূর্বাহ্ন

স্বর্ণপদকে বাথোয়াইচিং মারমা: একজন আদিবাসী চেয়ারম্যানের মানবিক কর্মকান্ডের স্বীকৃতি

প্রতিবেদক
  • সময় শুক্রবার, ৪ মে, ২০১৮
  • ৪১০ পঠিত

উথোয়াই মারমা জয়: 

আজ বিকাল ৫টায় রাজধানীর ফার্স হোটেল এ্যান্ড রিসোর্ট, বাংলাদেশ ইউনিয়ন পরিষদ ফোরাম ( বিইউপিএফ) কর্তৃক আয়োজিত “বাংলাদেশের অগ্রযাত্রায় ইউনিয়ন পরিষদের ভূমিকা শীর্ষক আলোচনা সভায় এলজিএসপি ‘এ’ গ্রেডভুক্ত সফল চেয়ারম্যান হিসেবে মানবিক কর্মকান্ডের স্বর্ণপদক ও বাংলাদেশ ইউনিয়ন পরিষদ ফোরামের আজীবন সদস্য সম্মাননা স্মারক পেলেন বান্দরবান জেলার লামা উপজেলায় ০১ নং গজালিয়া ইউনিয়নের আদিবাসী চেয়ারম্যান জনাব বাথোয়াইচিং মারমা।
উল্লেখ্য যে, সমগ্র বাংলাদেশের ৮টি বিভাগের মোট ৪৫৫৩টি ইউপি চেয়ারম্যানের মধ্যে ৯২জন কে ২০১৬-১৭ অর্থ বছরে লোকাল গর্ভণ্যন্স সার্পোট প্রজেক্ট-৩ (এলজিএসপি-৩) এ সফলতা ও দক্ষতার সাথে কর্মকান্ড পরিচালনার জন্য উক্ত সম্মাননা প্রদান করা হয়।

বাংলাদেশ ইউনিয়ন পরিষদ ফোরামে সভাপতি মাহবুবুর রহমান টুল’রু সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব নুরুজ্জামান আহমেদ এম.পি। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য জনাব প্রফেসর ডঃ আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক , জনাব রুহুল আমিন, সংসদ সদস্য, কুড়িগ্রাম-৪, জনাব আবু সাইদ খান, উপ-সম্পাদক, দৈনিক সমকাল, জনাব জামিল আহমেদ, গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব এবং প্রধান নির্বাহী জার্নালিজম ট্রেনিং এন্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউট এবং জনাব সাখাওয়াত হোসেন, সম্পাদক ও প্রকাশক, দৈনিক নবচেতনা ।

এর আগেও সামাজিক ও উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের স্বীকৃতি হিসেবে ২০১৫-১৬ অর্থ বছরে ৩ পার্বত্য জেলার শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন এবং স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে গত ২০১৬ সালে ১০ দিনের জন্য ভারত ও মালেশিয়া সফর করেন।

জনাব বাথোয়াইচিং মারমা তার অনুভূতি প্রকাশ করে বলেন, এই অর্জনে সার্বক্ষণিক সহযোগিতা ও পাশে থাকার জন্য আমি আমার পরিষদ বর্গ, লামা উপজেলা ও গজালিয়া ইউনিয়নের প্রতিটি মানুষের কাছে কৃতজ্ঞ। আমার এই সম্মাননা গজালিয়া ইউনিয়নের প্রতিটি মানুষের সম্মাননা। তিনি এ সময় আরো বলেন, আগামীতে ইউনিয়ন পরিষদের অডিট রির্পোট, নিজস্ব উৎস হতে রাজস্ব বৃদ্ধি, হোল্ডিং ট্যাক্স ও কর আদায়, তথ্য সেবার মান বাড়ানো ও নতুন নতুন সুযোগ সৃষ্টি এবং ইউনিয়ন পরিষদের নিজস্ব আয় বৃদ্ধি করে মানবিক কর্মকান্ডে স্বচ্ছতা ও জব্বাদিহিতা নিশ্চিতে আরো বেশি অনুপ্রাণিত করবে আমাকে।

শেয়ার দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো
© All rights reserved © 2019 bibartanonline.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazarbibart251