1. pragrasree.sraman@gmail.com : ভিকখু প্রজ্ঞাশ্রী : ভিকখু প্রজ্ঞাশ্রী
  2. avijitcse12@gmail.com : নিজস্ব প্রতিবেদক :
শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০১:০৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
দ্বাদশ সংঘরাজ ড.ধর্মসেন মহাথেরোর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া শুরু সংঘরাজ ড. ধর্মসেন মহাথেরো : জ্ঞান বাতিঘর, এক মহাজীবন কাব্যের প্রস্থান সংঘরাজ ড. ধর্মসেন মহাথেরোর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর বাণী পটিয়ায় দ্বাদশ সংঘরাজ ড.ধর্মসেন মহাথেরোর অন্তোষ্টিক্রিয়া আগামীকাল শুরু চট্টগ্রাম মহানগর বাংলাদেশ বুডিস্ট গ্রুপ সংগঠনের শিক্ষাসামগ্রী বিতরণ বুধবার ক্লোজআপ ওয়ানখ্যাত সংগীতশিল্পী নিশিতা বড়ুয়ার বিয়ে পরলোকে বর্ষীয়ান গীটার শিল্পী মানবেন্দ্র বড়ুয়া মারমা ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন এর উদ্যোগে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস অহিংসা ধারণ করে ধর্মসেন মহাস্থবিরের আদর্শ অনুসরণ করতে হবে : বীর বাহাদুর সংযুক্ত আরব আমিরাত বৌদ্ধ বিহারে অভিনেতা গগন মল্লিক সংবর্ধিত

প্যাগোডাভিত্তিক প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা নিয়ে কর্মশালা

প্রতিবেদক
  • সময় শনিবার, ২ ডিসেম্বর, ২০১৭
  • ৩৬১ পঠিত

চট্টগ্রাম: শিশুদের ধর্মীয় ও নৈতিকতা শিক্ষার মধ্য দিয়ে প্রকৃত মানবতাবোধ শিক্ষা দেওয়ার জন্য শৈশব হচ্ছে সর্বোত্তম সময়। এক্ষেত্রে প্যাগোডাভিত্তিক   প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা প্রকল্প বৌদ্ধ ধর্মীয় জনগোষ্ঠীর শিশুদের মাঝে ধর্মীয় ও নৈতিকতা সম্পন্ন মানবিক মূল্যবোধ তৈরিতে অপরিসীম ভূমিকা রাখছে।

শনিবার (০২ ডিসেম্বর) সকালে ধর্ম সচিব মো. আনিছুর রহমান শিশুদের নৈতিকতা ও মেধা বিকাশে প্যাগোডাভিত্তিক প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষার গুরুত্ব এবং এর সমস্যা চিহ্নিত করণ ও সমাধান শীর্ষক কর্মশালায় এসব কথা বলেন।

চট্টগ্রাম অফিসার্স ক্লাবে বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট কর্তৃক পরিচালিত প্যাগোডা ভিত্তিক প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা প্রকল্পের ব্যবস্থাপনায় এই কর্মশালার আয়োজন করা হয়।

তিনি আরও বলেন, উন্নত নৈতিকতা শিক্ষার জন্য শৈশবকাল হচ্ছে সর্বশ্রেষ্ঠ সময়। এছাড়াও সরকারের এসডিজি লক্ষমাত্রা পূরণে এ প্রকল্প গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠা এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় নৈতিকতা ও মানবিক গুনাবলি সম্পন্ন শিক্ষিত প্রজন্ম গড়ে তুলতে এ প্রকল্প অগ্রগণ্য ভূমিকা পালন করবে। আশা করা যায় এ প্রকল্পের গুরুত্ব ও সফলতা ভবিষ্যতে আরও বৃদ্ধি পাবে। ট্রাস্ট প্রতিষ্ঠাকালে ১৯৮৪ সালে তৎকালিন সরকার ১ কোটি টাকার আমানত তহবিল বরাদ্ধ প্রদান করে এবং উক্ত তহবিল থেকে প্রাপ্ত লভ্যাংশ দিয়ে ট্রাস্টের কার্যক্রম শরু হয়। বর্তমানে প্রধানমন্ত্রীর একান্ত প্রচেষ্টায় ট্রাস্টের স্থায়ী আমানতের পরিমান ৭ কোটি টাকা। বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রস্টের কার্যক্রমকে অধিকতর গতিশীল ও তৃণমূল পর্যায়ে বিস্তৃত ঘটানোর নিমিত্তে সরকার ট্রাস্টিদের মনোনয়ন দিয়ে সাত সদস্য বিশিষ্ট গতিশীল ট্রাস্টি বোর্ড পূনর্গঠন করে। এর মধ্য দিয়ে ট্রাস্টের কার্যক্রম আরও বেগবান ও গতিশীল হবে।

দিনব্যাপি এ কর্মশালায় চট্টগ্রাম, বান্দরবান, খাগড়াছড়ি, রাঙ্গামাটি ও কক্সবাজার জেলার প্যাগোডা ভিত্তিক প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা প্রকল্পের ফিল্ড সুপারভাইজার ও শিক্ষকরা অংশ নেন।

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব মো. হাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মো. নুরুল আলম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো. হাবিবুর রহমান, বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান রাখাল চন্দ্র বড়ুয়া, সভাপতি সুপ্ত ভূষন বড়ুয়াসহ মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বক্তৃতা করেন।

শেয়ার করুন

 

শেয়ার দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো
© All rights reserved © 2019 bibartanonline.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazarbibart251
error: Content is protected !!